Biman Bose on Food Movement

31st August 1959: A Retrospect

খাদ্য আন্দোলন আমাদের রাজ্যে এবং দেশে মানুষের লড়াই-সংগ্রামের ইতিহাসে এক অনন্য নজীর। নিজেদের অধিকারের ন্যায্য দাবীসহ শাসকের সামনাসামনি হলে খেটেখাওয়া-মেহনতি মানুষের বিরুদ্ধে শাসকের আসল চেহারাটা বেরিয়ে আসে – তখন সেই লড়াই দাবী মেটানোর স্তর অতিক্রম করে সংগ্রামী মানুষের চেতনাকে এক নতুন স্তরে পৌঁছে দেয়। ঐতিহাসিক খাদ্য আন্দোলনকে এই আলোকেই দেখতে হবে, বিচার করতে হবে।

Food Movement Cover

Food Movement: A Legacy

আজকের প্রজন্মের কর্মীরা ইতিহাসের শিক্ষা গ্রহণ করেই আগামীর সংগ্রাম গড়ে তুলতে পার্টির কাজে সক্রিয় হবেন, এই শপথেই পালিত হোক আজকের কর্মসূচি।

Food Move 1

“১৪৪ ধারা ভাঙবো, দলে দলে ১৪৪ ধারা ভাঙবো, একজন দুজন করে নয়, হাজার হাজার লোক ১৪৪ ধারা ভাঙবো” – বিধানসভায় জ্যোতি বসু

১৯৫৯ সালের ৩১ আগস্ট শহীদ মিনার ময়দানে তিন লক্ষাধিক মানুষ জমায়েত হয়েছিল খাদ্যমন্ত্রী প্রফুল্ল চন্দ্র সেনের অপসারণ এবং খাদ্যের দাবিতে। পুলিশ মিছিলের ওপর গুলি চালায়। এই খাদ্য আন্দোলনে ৮০ জন শহীদ হন, নিখোঁজ হন অন্তত ২০০ মানুষ।

Note On Food Movement: A Retrospect

১৯৫৯ সালের খাদ্য আন্দোলন পশ্চিমবঙ্গ সহ সারা দেশের মেহনতি মানুষের লড়াইতে এক অনন্য নজীর। তৎকালীন খাদ্য সংকটের জন্য প্রাদেশিক সরকারের অপদার্থতাই ছিল মূলত দায়ী। সেই সময় অবিভক্ত কমিউনিস্ট পার্টির প্রাদেশিক কমিটি রাজ্যের সমস্ত পার্টি ইউনিটকে আসন্ন খাদ্য সংকট মোকাবিলায় নির্দিষ্ট পথনির্দেশ দেয়। পার্টি চিঠির আকারে সেই নির্দেশ পার্টি ইউনিটগুলিতে পাঠানো হয়। রাজ্য ওয়েবসাইটের পক্ষ থেকে সেই পার্টি চিঠিই প্রকাশ করা হল। এই চিঠি শুধুই এক ঐতিহাসিক দলীল না, আজকের পরিস্থিতির ব্যাখ্যা, কর্মসূচি গ্রহণ এবং মোকাবিলায় কমিউনিস্টদের দৃষ্টিভঙ্গি বুঝতেও সহায়ক।