পার্টির কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য শ্যামল চক্রবর্তী’র প্রয়ানে গভীর ভাবে শোক জ্ঞাপণ করল সিপিআই(এম) পলিটব্যুরো…

ভারতের কমিউনিস্ট পার্টি (মার্কসবাদী) এর পলিট ব্যুরো নিম্নলিখিত বিবৃতি জারি করেছে:

পার্টির কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য কমরেড শ্যামল চক্রবর্তীর মৃত্যুতে ভারতের কমিউনিস্ট পার্টির (মার্কসবাদী) পলিট ব্যুরো গভীর শোক প্রকাশ করেছে। তাঁর বয়স হয়েছিল ৭৭ বছর। হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে আজ বিকেলে কলকাতার একটি হাসপাতালে তিনি প্রয়াত হন।

কিছু স্বাস্থ্য সমস্যার কারণে তাকে কিছুদিন আগে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল এবং পরে কোভিড -১৯-এর জন্য পরীক্ষায় তাঁর রিপোর্ট পজিটিভ আসে।

শ্যামল চক্রবর্তী ১৯৬০ এর দশকের গোড়ার দিকে ছাত্র আন্দোলনে যোগ দিয়েছিলেন এবং কলকাতার বিদ্যাসাগর কলেজে ছাত্র সংসদের সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হন।

তিনি ১৯৬০ সালে অবিভক্ত কমিউনিস্ট পার্টিতে যোগ দিয়েছিলেন। ১৯৮১ সালে তিনি প্রথমবারের মতো পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভায় নির্বাচিত হন এবং পরে আরও তিনবার নির্বাচিত হয়েছিলেন। তিনি নয় বছর পরিবহণ মন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করেছিলেন। তিনি একটি মেয়াদ রাজ্যসভায়ও নির্বাচিত হয়েছিলেন।

শ্যামল চক্রবর্তী শ্রমিকদের বিভিন্ন ইউনিয়নের সাথে যুক্ত ছিলেন। তিনি সেন্টার অফ ইন্ডিয়ান ট্রেড ইউনিয়নের পশ্চিমবঙ্গ ইউনিটের সভাপতির দায়িত্ব পালন সহ সিআইটিইউ-এর বিভিন্ন দায়িত্ব পালন করেছিলেন।

তিনি ১৯৭৮ সালে পার্টির রাজ্য কমিটি এবং ২০০২ সালে কেন্দ্রীয় কমিটিতে নির্বাচিত হয়েছিলেন।
পলিট ব্যুরো তার মেয়ে উষশী চক্রবর্তী এবং পশ্চিমবঙ্গে পার্টির সকল সদস্যদের প্রতি আন্তরিক সমবেদনা জ্ঞাপন করে।

তিনি এক বছরের জন্য কারাগারে বন্দী ছিলেন এবং ছয় মাস আত্মগোপনে থাকেন।

Spread the word

Leave a Reply