নতুন ষড়যন্ত্র – ত্রিবেণী কুম্ভ মেলা

একটি মিথ্যাকে সত্য হিসাবে প্রতিষ্ঠা করতে সঙ্ঘ পরিবার এবং বিজেপি হিটলার, গোয়েবেলসকে প্রথম থেকে অনুসরণ করে আসছে। যেমন তাদের ফ্যাসিবাদী কার্যকলাপকে প্রকাশ্যে সমর্থন করে এসেছে। বহুদিন ধরে বাবরি মসজিদ রাম মন্দিরের উপর প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে বলে প্রচার করতে করতে একটি পর্যায় এসে রহস্যজনক ভাবে তাকে আইনী বৈধতা দেওয়া হল। যেমন প্রচার করে সমুদ্রগুপ্ত কুতুব মিনার তৈরি করেছিলেন এবং তার আসল নাম বিষ্ণু স্তম্ভ। অথচ সমুদ্র গুপ্তের রাজত্বকাল ছিল ৩২০ থেকে ৩৮০ খ্রিস্টাব্দে। আর কুতুব মিনার তৈরি হয় ১২০খ্রিস্টাব্দে। এই কাজ শেষ করেন ইলতুতমিস।

লগ্নি পুঁজির প্রকৃতি ও কর্পোরেট উৎপাদন সংগঠন বদলাচ্ছে

আগামী ভবিষ্যতে মানব সভ্যতার সবরকম পছন্দকে নিয়ন্ত্রণ করতে উদ্যত বহুজাতিক পুঁজির এই অমানবিক সর্বব্যাপক আধিপত্যের বিরুদ্ধে বৃহত্তর সংগ্রামের বাস্তব ভিত্তিও একই সাথে তৈরি হয়ে চলেছে।

Prakash Karat

উগ্র দক্ষিণপন্থার উত্থান ও আমাদের কর্তব্য (চতুর্থ পর্ব)

গত ৩ জানুয়ারি কলকাতার প্রমোদ দাশগুপ্ত ভবনে গনশক্তি পত্রিকার ৫৭তম বার্ষিকী উপলক্ষে বক্তৃতা করেন পার্টির পলিট ব্যুরো সদস্য প্রকাশ কারাত।

Prakash Karat

উগ্র দক্ষিণপন্থার উত্থান ও আমাদের কর্তব্য (তৃতীয় পর্ব)

গত ৩ জানুয়ারি কলকাতার প্রমোদ দাশগুপ্ত ভবনে গনশক্তি পত্রিকার ৫৭তম বার্ষিকী উপলক্ষে বক্তৃতা করেন পার্টির পলিট ব্যুরো সদস্য প্রকাশ কারাত।

নরক দর্শনের ৭৭ বছর

আশি হাজার মানুষ মারা গিয়েছিলেন। যারা আগুনে পুড়ে মারা গেলেন না, তারা তেজস্ক্রিয় বিকিরণের শিকার হয়ে বেঁচে রইলেন। এদের বলা হয় হিবাকুশা। এমনকি মায়ের পেটে যারা ছিলেন এবং হাইপো সেন্টারের ২ কিলোমিটারের মধ্যে সন্তানসম্ভবা মা ছিলেন বা দুই সপ্তাহের মধ্যে গিয়েছিলেন, তারা সবাই হিবাকুশা।

গান্ধী এবং সাভারকর: ইতিহাসের বিকৃতি

মৃদুলা মুখার্জি/আদিত্য মুখার্জি/সুচেতা মহাজন দ্য ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস, ১৩ অক্টোবর,২০২১,আমাদের জানায় যে ভারতের প্রতিরক্ষা মন্ত্রী রাজনাথ সিং দাবি করেছেন যে “সাভারকারের

Liberals on Mamata

মমতাকে সুবিধা পাইয়ে দিতে এখন লিঙ্গ রাজনীতিকে তুলে ধরা হচ্ছে

রন্তিদেব থেকে সেমন্তী ঘোষ, এঁরা বা এঁদের মতো সাংবাদিকতার পেশার সঙ্গে যুক্ত মানুষরা অতীতে বা বর্তমানে যেভাবে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে রাজনীতির বাইরে একটি আইকন হিশেবে প্রতিষ্ঠিত করবার চেষ্টা করেছেন বা করছেন, এমনটা কিন্তু অতীতে ভারতের কোনো রাজনীতিককে নিয়েই হয় নি।পন্ডিত নেহরুর যথেষ্ট গুণগ্রাহী মহল ছিল।কিন্তু তা বলে অরাজনৈতিক ভাবে নেহরুকে দেবত্ব আরোপ কখনো করা হয় নি।আর এই দেবত্ব আরোপের বিষয়টি নেহরু পছন্দ করতেন , সমসাময়িক সাংবাদিকদের কারো লেখাতে তেমন কোনো সাক্ষ্য নেই।চেলাপতি রাও , যিনি অত্যন্ত কমিউনিষ্ট বিদ্বেষী সাংবাদিক ছিলেন, হীরেন্দ্রনাথ মুখোপাধ্যায়কে পর্যন্ত , ‘আ কমিউনিষ্ট অফ আ ফেরোসাস টাইপ ‘ বলে চিহ্নিত করেছিলেন,তিনি ও ব্যক্তি ক্যারিশমা তৈরির সাংবাদিক প্রবণতাকে পন্ডিত নেহরু কতোখানি অপছন্দ করতেন, সে সম্পর্ক লিখে গিয়েছেন।

কুৎসার আড়ালে প্রকৃত সত্য (নন্দীগ্রাম সন্ত্রাস ) - অর্ণব ভট্টাচার্য

নন্দীগ্রাম: ষড়যন্ত্র আর সন্ত্রাসের ল্যাবরেটরি সপ্তম বামফ্রন্ট সরকার পশ্চিমবঙ্গে বৃহৎ শিল্প এবং তার অনুসারী কল-কারখানা গুলির মাধ্যমে ব্যাপক কর্মসংস্থান সৃষ্টির

কুৎসার আড়ালে প্রকৃত সত্য - তাপসী মালিকের মৃত্যু রহস্য....

২০০৬ সালের ১৮ ডিসেম্বর সিঙ্গুরের বাজেমেলিয়া গ্রামের বাসিন্দা ১৬ বছরের কিশোরী তাপসী মালিকের মৃত্যুর খবর নিয়ে বাংলা জুড়ে যে আলোড়ন