গ্রামের আয়নায় মার্কসবাদকে অভ্রান্ত প্রমাণ করা এক গান্ধীবাদী

সমালোচনায় বিদ্ধ মনের কাতরতা থেকে আবার তিনি কবিকে লিখলেন,‘‘রাইকমল সম্পর্কে আপনি আমাকে সান্ত্বনা দিয়েছেন কিনা জানি না। কারণ আমার সমসাময়িকেরা আমার লেখাকে বলেন—স্থুল। ১৯৩৭-র ১২ই মার্চ রবীন্দ্রনাথ জবাব পাঠালেন,‘‘তোমার স্থুল দৃষ্টির অপবাদ কে দিয়েছে জানিনে কিন্তু আমার তো মনে হয় তোমার রচনায় সূক্ষ্মস্পর্শ আছে, আর তোমার কলমে বাস্তবতা সত্য হয়েই দেখা দেয় তাতে বাস্তবতার কোমরবাঁধা ভান নেই, গল্প লিখতে বসে গল্প না লেখাটাকেই যাঁরা বাহাদুরি মনে করেন, তুমি যে তাঁদের দলে নাম লেখাওনি এতে খুশি হয়েছি।’’

বুদ্ধ থেকে মার্কস : জন্মদিবসে রাহুল সাংকৃত্যায়ন

‘আমার জীবনের যাত্রাপথে জ্ঞানকে আমি পার হওয়ার জন্য নৌকার মতো ব্যবহার করেছি মাথায় বোঝার মত বয়ে বয়ে ঘুরে বেড়ানোর কাজ