varvara rao

অন্তর্বর্তী জামিন পেলেন ভারভারা রাও

তিনি কবি। ৮২ বছরের অসুস্থ কবি। ভারভারা রাও।

২০১৮ সালের আগস্ট মাস থেকে তার ঠিকানা ছিল মহারাষ্ট্রের তালোজা জেল।

তার বিরুদ্ধে অভিযোগ, নিষিদ্ধ সংগঠনের সদস্য তিনি। অভিযোগ ভিমা কোরেগাঁও - এর ঘটনায় তিনি একজন ষড়যন্ত্রকারী।

তার অন্তর্বর্তী জামিন দিতে বোম্বে হাইকোর্ট উল্লেখ করেছে তার বয়স, স্বাস্থ্যের অবস্থা।

জেলে থাকাকালীন তার স্বাস্থ্যের অবনতি হওয়ায় আদালতে জামিনের আপীল করা হয়েছিল, তার স্ত্রী হেমলতা অভিযোগ করেছিলেন জেলের ভিতরে রাও'কে চিকিৎসার সুযোগ দেওয়া হচ্ছে না। করোনাতেও আক্রান্ত হয়েছিলেন তিনি। শেষে হাইকোর্টের হস্তক্ষেপে তাকে নানাবতি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

আদালত রাও'র জামিন ঘোষণা করার সময়েও হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন ভারভারা রাও।

অন্তর্বর্তী জামিনে থাকার মেয়াদ ছয় মাস পরে শেষ হবে, তখন পুনরায় আদালতে জামিনের মেয়াদ বৃদ্ধির আবেদন করতে হবে রাও'কে। এর মাঝে নিয়মিত থানায় হাজিরা দিতে হবে তাকে - অনলাইনে। একইধরণের অভিযোগে অন্যান্য যারা জেলে রয়েছেন তাদের সাথে যোগাযোগ করতে পারবেন না, কোন গনমাধ্যমে মতামত প্রকাশ করতে পারবেন না।

কারন - এনআইএ এবং পুলিশের সন্দেহ স্বাভাবিক জীবনে ফেরার সুযোগ পেলে ৮২ বছরের অসুস্থ কবি রাষ্ট্রের জন্য বিপদ প্রতিপন্ন হতে পারেন!

রাও'র কলমেই একসময় লেখা হয়েছিল ...

"গান যখন হয়ে ওঠে যুদ্ধেরই শস্ত্র

কবিকে তখন ভয় পায় ওরা।

কয়েদ করে তাকে, আর

গর্দানে আরও শক্ত করে জড়িয়ে দেয় ফাঁস

কিন্তু, তারই মধ্যে, কবি তাঁর সুর নিয়ে

শ্বাস ফেলছেন জনতার মাঝখানে"

চারণকবি - অনুবাদ শঙ্খ ঘোষ


শেয়ার করুন

উত্তর দিন